Jn Tata Scholarship: ছাত্রছাত্রীদের উচ্চশিক্ষিত করতে 10 লক্ষ টাকার সুবিধা দিচ্ছে Tata Group! লাভ ওঠান এখুনি

Jn Tata Scholarship: উচ্চশিক্ষায় শিক্ষিত হতে ছাত্রছাত্রীদের জন্য সুখবর এনে দিল টাটা। যেখানে পাওয়া যাবে 10 লক্ষ টাকার সুবিধা। কিন্তু তার জন্য মানতে হবে বেশ কিছু নিয়ম। থাকতে হবে নির্ধারিত…

Written by Palash

Published on:

Jn Tata Scholarship: উচ্চশিক্ষায় শিক্ষিত হতে ছাত্রছাত্রীদের জন্য সুখবর এনে দিল টাটা। যেখানে পাওয়া যাবে 10 লক্ষ টাকার সুবিধা। কিন্তু তার জন্য মানতে হবে বেশ কিছু নিয়ম। থাকতে হবে নির্ধারিত মেধা। তবে সবাইকেই নয় বেশ কয়েকজনকে বেছে নিয়ে এই সুবিধা প্রদান করবে টাটা সংস্থা। Jn Tata Endowment Loan Scholarship নিয়ে হাজির হয়েছে এই সংস্থা। আর্থিক অভাবে যারা উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত হতে এদেশে কিংবা বিদেশে যেতে পারছেন না তাদের জন্য এই সুবিধা অত্যন্ত কার্যকরী।

Jn Tata Endowment Loan Scholarship

১৮৯২ সালে টাটা গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা তৈরি করেছিলেন Jn Tata Endowment Loan Scholarship। এবার সেই সংস্থা ছাত্র-ছাত্রীদের স্কলারশিপের জন্য করলো বড়সড় ঘোষণা। শিক্ষা ক্ষেত্রে রাজ্য কিংবা দেশের বিভিন্ন স্কলারশিপের পাশাপাশি উচ্চশিক্ষায় শিক্ষিত হতে ছাত্র-ছাত্রীরা আবেদন করতে পারেন এই স্কলারশিপ এর জন্য। ভারতের ছাত্রছাত্রীরা যাতে বিদেশে উচ্চশিক্ষা লাভ করতে পারে সেই কথা মাথায় রেখেই ছাত্রদের মেধার উপরে ভিত্তি করে একটি বৃত্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত জে এন টাটার। বিজ্ঞান সহ আইন, বাণিজ্য এইরকম নানান বিষয়ে সারা ভারতে ৯০ থেকে ১০০ জন পেতে পারেন এই স্কলারশিপের সুবিধা।

Eligibility (যোগ্যতা)

  • এই স্কলারশিপ পেতে গেলে প্রার্থীর বেশ কিছু বিষয়ে যোগ্যতা থাকা আবশ্যক।
  • হতে হবে ভারতীয় নাগরিক
  • ২০২৪ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত প্রার্থীর বয়স হতে হবে নূন্যতম ৪৫
  • ইচ্ছুক প্রার্থীকে অবশ্যই ভারতীয় যে কোনো বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক বা স্নাতকোত্তরে ৬০ শতাংশ নম্বর পেয়ে করতে হবে পাশ।

Who Can Apply (কারা করতে পারবেন আবেদন)

  • প্রথমবার আবেদন করে এই স্কলারশিপ না পেলে দ্বিতীয়বারের জন্য আবেদন করতে পারেন ছাত্র-ছাত্রীরা।
  • যে সমস্ত ভারতীয় ছাত্রছাত্রীরা বিদেশে পড়াশোনা করছেন তারা প্রথম বর্ষ শেষের দ্বিতীয় বর্ষে আবেদন করতে পারবেন।
  • ডিগ্রী কোর্সের পরীক্ষার দেওয়ার পর রেজাল্ট বেরোনোর আগে অপেক্ষায় থাকা ছাত্র ছাত্রীরা আবেদন করতে পারেন এই স্কলারশিপ পাওয়ার জন্য।

How to Apply (কীভাবে করা যাবে আবেদন)

  • অনলাইনের মাধ্যমে (jntataendowment.org) আবেদন করতে হবে এই স্কলারশিপ এর জন্য।

Documents (প্রয়োজনীয় নথি)

  • এই স্কলারশিপে আবেদন করতে চারটি পর্যায়ে লাগবে প্রয়োজনীয় নথি।

1st Stage (প্রথম পর্যায়)

  • ছবি
  • আধার কার্ড
  • পাসপোর্ট
  • মার্কশিট কিংবা শিক্ষাগত যোগ্যতার প্রমাণপত্র
  • পরিকল্পিত উদ্দেশ্যের বিবরণ
  • কোন কাজের সঙ্গে যুক্ত থাকলে অভিজ্ঞতার শংসাপত্র
  • কোন কাজের সঙ্গে যুক্ত থাকলে বর্তমান নিয়োগ কর্তার থেকে নিয়োগ পত্র
  • কোন কাজের সঙ্গে যুক্ত থাকলে সর্বশেষ ITR/ তিন মাসের বেতন স্লিপ

2nd Stage (দ্বিতীয় পর্যায়)

  • দ্বিতীয় পর্যায়ে কোন ধরনের নথি লাগবেনা।

3rd Stage (তৃতীয় পর্যায়)

  • বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তির চিঠি
  • কোন প্রার্থী কাজ করলে একটি সুপারিশ চিঠি
  • শেষ বছরের মার্কশিট
  • স্কোরকার্ড
  • যদি থাকে তবে যেকোনো বৃত্তির শংসাপত্র
  • পড়াশোনার অন্তর্ভুক্ত কিংবা পড়াশোনার বাইরে অর্জন করা কোন শংসাপত্র
  • যেকোনো একটি গবেষণা কাজ অথবা প্রকল্পের কাজ
  • জীবন বৃত্তান্ত
  • পড়াশুনার খরচ
  • আর্থিক উৎস

আরও পড়ুন: KYC আপডেট নিয়ে নয়া নির্দেশিকা জারি করলো RBI! এই নিয়ম না মানলেই বিপদ

4th Stage (চতুর্থ পর্যায়)

  • প্রার্থীর প্যানকার্ড
  • প্রার্থীর বাতিল হওয়া চেক অথবা ব্যাঙ্কের স্টেটমেন্ট
  • সাক্ষীর প্যান ও আধার কার্ড
  • সাক্ষীর পাসপোর্ট সাইজ ছবি
  • সাক্ষীর আয়ের প্রমাণ অথবা শেষ বছর করা ITR।
  • এই সমস্ত নথি থাকলেই একজন পড়ুয়া আবেদন করতে পারেন এই স্কলারশিপের জন্য।