Madhyamik Exam 2024: মাধ্যমিক নিয়ে বড়সড় ঘোষণা, না মানলে বাতিল হবে পরীক্ষা! কড়াকড়ি ব্যবস্থার নির্দেশ পর্ষদের

Madhyamik Exam 2024: ফাঁস হবে না প্রশ্নপত্র। পরীক্ষার হলে বসে ঘাড় ঘোরালেই মহাবিপদ। বাতিল হয়ে যাবে পরীক্ষা। পরীক্ষার ব্যবস্থায় আরও স্বচ্ছতা নিয়ে আসতে, মাধ্যমিকে নিরাপত্তা বজায় রাখতে বড্ড কড়াকড়ি ব্যবস্থা…

Written by Laxmishree Banerjee

Updated on:

Madhyamik Exam 2024: ফাঁস হবে না প্রশ্নপত্র। পরীক্ষার হলে বসে ঘাড় ঘোরালেই মহাবিপদ। বাতিল হয়ে যাবে পরীক্ষা। পরীক্ষার ব্যবস্থায় আরও স্বচ্ছতা নিয়ে আসতে, মাধ্যমিকে নিরাপত্তা বজায় রাখতে বড্ড কড়াকড়ি ব্যবস্থা নিল পর্ষদ। পরীক্ষাকেন্দ্রগুলিকে শুক্রবারই চিঠিও পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। কিছু বাধ্যতামূলক পদক্ষেপ নেওয়ার কথা জানানো হয়েছে ওই বিশেষ চিঠিতে। যা শুনলে কিছুটা হলেও চিন্তায় পড়তে পারেন পরীক্ষার্থীরা।

পরীক্ষাকেন্দ্রগুলিকে চিঠিতে কী জানিয়েছে পর্ষদ?

মাধ্যমিক পরীক্ষা (Madhyamik Exam 2024) যেদিন যেদিন বসবে। সেই প্রত্যেক দিনগুলিতে সকাল 8 টা থেকে বিকেল 5 টা পর্যন্ত যাতে পুরো সিসিটিভি ফুটেজ যাতে সংরক্ষণ করা থাকে। প্রয়োজনে ব্যাক আপ রাখতে হবে। কোনোভাবে যদি কোনো তথ্যে গণ্ডগোল দেখা যায়। তৎক্ষণাৎ নেওয়া হবে কড়া ব্যবস্থা।

পরীক্ষার ফলপ্রকাশের আগে পর্যন্ত সিসিটিভি ফুটেজের প্রতিটি অংশ সংরক্ষণ করতে হবে কেন্দ্রগুলিকে। একটিও সিসিটিভি ফুটেজ নষ্ট হলে দায়বদ্ধ থাকবেন পরীক্ষাকেন্দ্রের প্রধান শিক্ষক।

আরও পড়ুন: পেতে পারেন 10,000 টাকারও বেশি, মাধ্যমিক-উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের জন্য নয়া সুযোগ

প্রশ্নপত্র ফাঁস রুখতে কোন পদক্ষেপ?

উল্লেখ্য, 2024 সালের 2 ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হবে বহু প্রতীক্ষিত মাধ্যমিক পরীক্ষা (Madhyamik Exam 2024)। শেষ হবে 12 তারিখে। রুটিন অনুযায়ী, দুপুর 11:45 থেকে বিকেল 3:00 পর্যন্ত নেওয়া হবে মাধ্যমিক পরীক্ষা। আর প্রশ্নপত্র ফাঁস রুখতে পর্ষদের তরফে একেবারে বদলে দেওয়া হবে প্রশ্নপত্রের চেহারা। সম্প্রতি, পর্ষদ সভাপতি রামানুজ গঙ্গোপাধ্যায় বলেছেন,

প্রত্যেক পরিক্ষার্থীর জন্য প্রতিটি প্রশ্নপত্রে আলাদা আলাদা কোড থাকবে। প্রতিটি পাতায় এমবেড করা থাকবে ওই কোড।

এতে কেউ জালিয়াতি করে প্রশ্নপত্রের ছবি তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করলে ওই কোডের সাহায্যেই চিহ্নিত করা যাবে কোন পরীক্ষার্থী এমন বেআইনি কাজ করেছেন। আর সেই ভিত্তিতেই এমন অস্বস্তিকর কর্মকাণ্ডে জড়িত প্রার্থীর পরীক্ষা বাতিল করা হবে।