Namo Lakshmi-Namo Saraswati Scheme: রাজ্যের পড়ুয়ারা প্রতি বছর পাবে 10 থেকে 15 হাজার টাকা! চালু হলো নতুন প্রকল্প

Namo Lakshmi-Namo Saraswati Scheme: পড়াশোনার প্রতি আগ্রহ বাড়াতে এবার নয়া উদ্যোগ রাজ্য সরকারের। প্রতিটি পড়ুয়াকে দেওয়া হবে বছরে মোটা অঙ্কের টাকা। বাজেট পেস (Budget 2024) করার সময় এমনটাই জানালেন অর্থমন্ত্রী।…

Written by Palash

Published on:

Namo Lakshmi-Namo Saraswati Scheme: পড়াশোনার প্রতি আগ্রহ বাড়াতে এবার নয়া উদ্যোগ রাজ্য সরকারের। প্রতিটি পড়ুয়াকে দেওয়া হবে বছরে মোটা অঙ্কের টাকা। বাজেট পেস (Budget 2024) করার সময় এমনটাই জানালেন অর্থমন্ত্রী। খুব শীঘ্রই চালু হতে চলেছে ‘নমো লক্ষ্মী’ (Namo Lakshmi-Namo Saraswati Scheme) এবং ‘নমো সরস্বতী’ (Namo Saraswati) স্কলারশিপ। এই দুই স্কলারশিপের মাধ্যমে প্রত্যেক বছর পড়াশোনার জন্য টাকা পাবেন পড়ুয়ারা।

নবম শ্রেণী থেকে দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত মিলবে সরকারি অনুদান। সরকারি স্কুল এবং সরকার অনুমোদিত স্কুলে পড়াশোনা করলেই মিলবে এই সুবিধা। এই প্রকল্পের মূল লক্ষ্য হলো তালিকাভুক্তি বৃদ্ধি করা এবং স্কুল ছুট পড়ুয়াদের সংখ্যা কমানো। এই দুই স্কলারশিপের জন্য সরকারের তরফ থেকে বরাদ্দ করা হয়েছে 1,250 কোটি টাকা। কারো পাবেন এই সুবিধা? কীভাবে করতে হবে আবেদন? রইল বিস্তারিত।

Eligibility For Namo Lakshmi-Namo Saraswati Scheme

নবম শ্রেণী এবং দশম শ্রেণীর পড়ুয়ারা প্রত্যেক মাসে পাবেন 500 টাকা করে। অর্থাৎ বছরে তাদের হাতে তুলে দেওয়া হবে 10,000 টাকা। মাধ্যমিক পরীক্ষায় পাস করার পরেই সরাসরি পড়ুয়াদের অ্যাকাউন্টে চলে আসবে 50 শতাংশ টাকা। একই রকম ভাবে একাদশ এবং দ্বাদশ শ্রেণীর পড়ুয়ারা প্রত্যেক বছর পাবেন 15,000 টাকা। দ্বাদশ শ্রেণির পরীক্ষায় পাস করলেই সরাসরি অ্যাকাউন্টে টাকা চলে আসবে পড়ুয়াদের। তবে এই দুই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন কেবলমাত্র ছাত্রীরা। অর্থাৎ ছাত্ররা কোনভাবেই করতে পারবেন না আবেদন।

Namo Lakshmi-Namo Saraswati Scheme: রাজ্যের পড়ুয়ারা প্রতি বছর পাবে 10 থেকে 15 হাজার টাকা! চালু হলো নতুন প্রকল্পসরকারি প্রকল্প

অষ্টম শ্রেণীর পড়াশোনা সম্পন্ন করে যে সমস্ত ছাত্রীরা নবম শ্রেণীতে ভর্তি হয়েছেন এবং যারা সরকারি এবং সাহায্যপ্রাপ্ত স্কুলে পড়াশোনা করছেন তারা সকলেই পাবেন এই দুই প্রকল্পের সুবিধা। এর জন্য অবশ্য পরিবারের বার্ষিক আয় হতে হবে 6 লাখ টাকার নিচে। ‘নমো সরস্বতী’ মেধা বৃত্তির আওতায় থাকা শিক্ষার্থীদের জন্য অতিরিক্ত সুবিধা হিসেবে নিয়ে আসা হয়েছে ‘নমো লক্ষ্মী’ যোজনা (Namo Lakshmi Namo Saraswati Scheme)। ইতিমধ্যেই স্কুল এবং উচ্চ ও কারিগরি শিক্ষার সমন্বয় শিক্ষা খাতে বরাদ্দ গত 7 বছর ধরে ধীরে ধীরে বৃদ্ধি পেয়েছে।

আরও পড়ুন: মাধ্যমিক পাশে ক্লেরিক্যাল অ্যাসিস্ট্যান্ট পদে নিয়োগ, ইন্টারভিউর মাধম্যে চাকরি হবে

কারা ‘নমো লক্ষ্মী’ প্রকল্পের সুবিধা পাবে (Who will get Namo Lakshmi-Namo Saraswati Scheme benefit?)

জানিয়ে রাখি, এই সুবিধা পেতে হলে কিন্তু আহমেদাবাদের বাসিন্দা হতে হবে। অর্থাৎ পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফে নয় বরং এই প্রকল্পের ঘোষণা করা হয়েছে আহমেদাবাদ সরকারের তরফে। এই ঘোষণা করেছেন অর্থমন্ত্রী কানুভাই দেশাই। পড়াশোনা ছেড়ে যেন কোনোভাবেই নাবালিকা ছাত্রীরা বিয়ের পিঁড়িতে না বসেন সে কারণেই নেওয়া হয়েছে এমন উদ্যোগ।