রাজ্যে টোটো চলাচলে নিষেধজ্ঞা, নতুন নিয়ম না জানলে পড়বেন বড় বিপদে

Toto Banned: যানজট এড়াতে পুজোর মুখে আরও কঠোর প্রশাসন। শহরে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হলো টোটোর চলাচলে। মেইন রোডে অত্যধিক টোটো চলাচল করায় সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছিলেন অন্যান্য গাড়ি চালকেরা। এমতাবস্থায় প্রশাসনের…

Written by Laxmishree Banerjee

Published on:

Toto Banned: যানজট এড়াতে পুজোর মুখে আরও কঠোর প্রশাসন। শহরে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হলো টোটোর চলাচলে। মেইন রোডে অত্যধিক টোটো চলাচল করায় সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছিলেন অন্যান্য গাড়ি চালকেরা। এমতাবস্থায় প্রশাসনের কানে কথা পৌঁছলে টোটোগুলোকে সরকারি ভাবে নতিভুক্তক করার নির্দেশ দেওয়া হয়। এর পরেও একই হাল। পুজোর আগে আরও বেড়ে গিয়েছে টোটো চলোচল। স্বাভাবিকভাবেই শুরু হয়েছে ঝামেলা। যার দরুণ টোটো চালকদের আয় বন্ধ হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা দেখা যাচ্ছে।

এইমুহূর্তে গ্রাম থেকে বহু টোটো আসছে শহরের মেইন রাস্তায়। বিশেষত ব্যস্ত এলাকার মেন রাস্তায় টোটো চলাচল করত। ফলে অন্যান্য গাড়ির সঙ্গে তালগোল পাকিয়ে তৈরি হচ্ছিল যানজট। সেই অভিযোগ দায়ের হতেই পুলিশ কর্তৃপক্ষ ঘোষণা করে দিয়েছে যে শহরের অলিগলি ছাড়া মেন রাস্তায় আর টোটো চলাচল করবে না। এদিকে ঠিক পুজোর মুখে মেইন রোডে টোটো চলাচল বন্ধ হওয়ায় চরম আর্থিক ক্ষতিতে পড়ছেন টোটো চালকরা। থানায় দায়ের করা হয়েছে অভিযোগ। কিন্তু পুলিশ এড়িয়ে গিয়েছে তা। বলা হয়েছে, সুষ্ঠু ভাবে ব্যস্ত পথে যানবাহন পরিষেবা দিয়ে এলাকাকে নিয়ন্ত্রণে রাখতেই এমন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: রয়েছে বিশেষ ইঞ্জিনের ব্যবস্থা, ২২ কোচযুক্ত স্বল্প ভাড়ায় সকল যাত্রীদের নিয়ে পথ চলবে ‘বন্দে সাধারণ ট্রেন’

এরপরই এলাকার সমস্ত টোটো চালকদের সঙ্গে নিয়ে প্রতিবাদে সামিল হয়েছে টোটো সংগঠন। দাবি করা হচ্ছে, মেইন রাস্তায় টোটো চলাচল বন্ধ হলে যাত্রী পরিবহন অনেক কমে যাবে। যাতে রুটি রোজগার বন্ধ হবে তাঁদের। তাই যত শীঘ্র সম্ভব মেইন রাস্তায় আবার টোটো চালু করা হোক। বলা বাহুল্য, খবরটি পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে এসে পুলিশ প্রশাসন। কিন্তু কোনো লাভ হয়নি। টোটো চালকদের তরফে অনুমতি না দেওয়া হলে বিক্ষোভ চলবে বলেও জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এখন প্রশ্ন, চাপে পড়ে পুলিশ কি মেইন রোডে টোটো চলাচল করতে দেবে। মূলত টোটো চালকদের এমন নির্দেশ রাজ্যজুড়ে। ঘটনাটি ঘটেছে, দক্ষিণ 24 পরগনার বারুইপুরে। বারুইপুর যোগী বটতলা থেকে ফুলতলা পর্যন্ত এলাকার মতো ব্যস্ত এলাকায় অত্যন্ত টোটোর আনাগোনা রুখতে এমন পদক্ষেপ পুলিশের। তবে বলা হচ্ছে বাড়ুইপুরের মতো এই একই অবস্থা তো রাজ্যের অন্যান্য শহরেও। পুজোয় আরও বাড়বে। এমতাবস্থায় বাড়ুইপুরের মতো রাজ্যের বাকি শহরগুলোতেও কি একই নিয়ম জারি হবে। সেটাই দেখার।

এই ধরনের আরও আপডেট পেতে ফলো রাখুন আমাদের ফেসবুক পেজকে